Zovia Kids কি কাজ করে?

 সম্মানিত পাঠক বৃন্দ, আপনি আপনার শিশুর বৃদ্ধি নিয়ে কি চিন্তিত অথবা আপনার শিশু কি ক্ষুধা মন্দা বা দুর্বলতায় ভুগছে । আর এজন্য আপনি কি বাজারে কমপ্লেন বা হরলিক্স এই ধরনের ফুড সাপ্লিমেন্ট কিনা চিন্তা ভাবনা করছেন। তাহলে আমি বলব আপনি এ সকল চিন্তা মাথা থেকে বাদ দেন। 

এরকম হলে আমি বলব এই ধরনের সাপ্লিমেন্ট কিনা থেকে দূরে থাকুন এবং ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে জোভিয়া কিড মাল্টিভিটামিন সিরাপ টি কিনে খাওয়াতে পারেন। একটি বাড়ন্ত শিশুর জন্য এই  জোভিয়া কিডস কি কি কাজ করে কি পরিমানে খেতে হবে তারই বিস্তারিত আলোচনা করব

জোভিয়া কিডস এর নির্দেশনাঃ

কড-লিভার অয়েলসহ মাল্টিভিটামিন সিরাপে নিম্নোক্ত উপসর্দে নির্দেশিত-

❖ বাড়ন্ত শিশুর বৃদ্ধির পাশাপাশি শিশুর গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ সমুহের বৃদ্ধি এবং কাজ সঠিক নিয়ন্ত্রণ করে।

❖  ভিটামিনের অভাব পূরণ করে অসুস্থ এবং বাড়ন্ত শিশুর রোগের কারণে ক্ষুধামন্দা ও দুর্বলতা দূর করার পাশাপাশি রোগ পরবর্তী হারানো জীবনী শক্তি ফিরিয়ে আনে।

❖ ইহা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি সুস্থ সবল ত্বক, চুল, নখ, দাঁত, হাড়, চোখ এবং                স্নায়ুতন্ত্র গঠনে সহায়তা করে।

❖ কাশি, সর্দি, বুক এবং ফুসফুসের বিভিন্ন রোগ হতে প্রতিরোধ বাড়িয়ে দেয়।

❖ মস্তিষ্ক গঠনেও সহায়তা করে।

❖ ইহা প্রাপ্তবয়স্কদের হার্টের রোগ, রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস, সিওপিডি, ক্যানসার ইত্যাদিসহ গুরুত্বপূর্ণ       রোগসমূহের প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় সাহায্য করে।

❖ ইহা গর্ভস্থ এবং দুগ্ধপোষ্য শিশুর বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

জোভিয়া কিডসের বৈশিষ্ট্যঃ

 রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় সংক্রামক রোগের বিকাশের সর্বনিম্ন সম্ভাবনা।স্কুলের বাইরের দিনগুলি এবং খেলাধুলার ক্রিয়া কলাপ গুলিকে ছোট করুন।

 জ্ঞানীয় ফাংশন বিকাশ করে স্মৃতিশক্তি উন্নত করে এবং জ্ঞানীয় পতন রোধ করে।বাচ্চাদের পড়াশোনায় মনোযোগ দিতে সাহায্য করে এবং বাবা-মায়ের উদ্বেগ কমায়।

 হাড়ের খনিজকরণ নিশ্চিত করে স্বাস্থ্যকর হাড় ও দাঁত তৈরি করে। বৃদ্ধি নিশ্চিত করে এবং পরবর্তী জীবনে অস্টিওপরোসিস এবং ফ্র্যাকচারের ঝুঁকি কমায়।

 রিকেটের বিকাশ রোধ করে স্বাভাবিক বৃদ্ধি নিশ্চিত করে।সামাজিক কলঙ্ক এবং মানসিক অতৃপ্তি থেকে মুক্তি। 

জোভিয়া কিডসের উপাদানঃ

প্রতি ৫ মিঃলিঃ সিরাপে আছে-

  1. ভিটামিন এ ২০০০ আই ইউ
  2. ভিটামিন বি১  ০.৭০ মি.গ্রা.
  3. ভিটামিন বি২  ০.৮৫ মি.গ্রা.
  4. ভিটামিন বি৬  ০.৩৫ মি.গ্রা.
  5. ভিটামিন সি ১৭.৫০ মি.গ্রা.
  6. ভিটামিন ডি  ২০০ আই ইউ
  7. ভিটামিন ই ) ১.৫০ মি.গ্রা.
  8. নিকোটিনামাইড ইউএসপি ৯.০০ মি.গ্রা. এবং
  9. কড় লিভার অয়েল ইউএসপি ১০০.০০ মি.গ্রা.।


মাত্রা ও সেবনবিধিঃ

১ মাস হতে ১২ মাস: প্রতিদিন ২.৫ মিঃলি

১ বছর হতে ৪ বছর: প্রতিদিন ৫ মিঃলি 

৪ বছরের ঊর্ধ্বে: প্রতিদিন ৭.৫ মিঃলি 

প্রাপ্তবয়স্ক: প্রতিদিন ১০ মিঃলি 

* চিকিৎসকের পরামর্শ মোতাবেক ঔষধ সেবন করুন'

ফার্মাকোলজিঃ

এই প্রিপারেশনে আছে ৮টি প্রয়োজনীয় ভিটামিনসহ কড় লিভার অয়েল। ইহা শিশুদের বাড়তি সুরক্ষা দেয় এবং শিশুদের শক্তভাবে বেড়ে ওঠা ও সুস্থ থাকার জন্য পর্যাপ্ত ভিটামিন সরবরাহ নিশ্চিত করে। কড় লিভার অয়েলের মধ্যে আছে ভিটামিন এ, ভিটামিন ডি, ইপিএ ও ডিএইচএ। 

রোগ প্রতিরোধ, অস্থি বৃদ্ধি, নাইট ভিশন, কোষের বৃদ্ধি, টেস্টিকিউলার ও ওভারিয়ান ফাংশনে ভিটামিন এ প্রয়োজন হয়। ক্যালসিয়ামের শোষণ ও ব্যবহার এবং হাঁড়ের বৃদ্ধিতে ভিটামিন ডি প্রয়োজন হয়।ইপিএ ও ডিএইচএ হচ্ছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড যেগুলো শরীরে প্রোস্টাগ্লানডিনে রূপান্তরিত হয়। 

হরমোনের কাজের উপর প্রোস্টাগ্লানডিনের নিয়ন্ত্রণ করার প্রভাব থাকায় বিভিন্ন ধরণের শারীরিক প্রক্রিয়ায় প্রভাব ফেলে। ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড অস্টিওআথ্রাইটিস ও রিওমাটয়েড আথ্রাইটিসের উপসর্গ দূর করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং রক্ত সঞ্চালন সচল রাখে। ধারণা করা হয় যে, ইপিএ ও ডিএইচএ হৃদরোগের ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। অভূমিষ্ট শিশুর মস্তিষ্ক বৃদ্ধির জন্যও ডিএইচএ প্রয়োজন।

ঔষধের মিথষ্ক্রিয়াঃ

ইরাইথ্রোমাইসিন, কনজুগেটেড ইস্ট্রোজেন, সোডিয়াম বাইকার্বোনেট, ক্লোরামফেনিকল ইত্যাদি ঔষধের সাথে ইন্টারেকশন হতে পারে।

প্রতিনির্দেশনাঃ

এই সিরাপের যে কোন একটি উপাদানের প্রতি অতিসংবেদনশীল রোগীদের ক্ষেত্রে এটি প্রতিনির্দেশিত।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াঃ

সাধারণতঃ সু-সহনীয়। তবু কিছু এলার্জিক প্রতিক্রিয়া হতে পারে।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালেঃ

চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেব্য।

সতর্কতাঃ

এই ঔষধ শরীরে জমা হতে পারে বলে বিপদ ঘটাতে পারে। মাত্রাতিরিক্ত সেবন করা উচিত নয় অথবা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেব্য।২০৩


এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

বন্ধুমহল আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url